Skip to main content

কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক জব প্রোফাইল, স্যালারি, প্রমোশন, ডিউটি সময় ডিটেইলস

কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক জব প্রোফাইল, স্যালারি, প্রমোশন, ডিউটি সময় ডিটেইলস


কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক



Today Bengali News : রেলওয়ের একটি গুরুত্বপূর্ন কাজ হল কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক, যেটিকে কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্ক ও বলা হয়। RRB NTPC পরীক্ষার মাধ্যমে এই Commercial Cum Ticket Clerk পদে নিয়োগ করা  হয়ে থাকে। RRB NTPC 2019 এর নিয়োগে অনেকেই কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্ক পদে আবেদন করেছেন। চলুন জেনে নেই, এই পদের জব প্রোফাইল,  প্রোমোশন, স্যালারি, ডিউটি সময়, ছুটি সব ডিটেইলস সম্পর্কে -

কর্মাসিয়াল কাম টিকিট ক্লার্কের কাজ হল মূল UTS এ CRS টিকিট বুকিং করা। বুঝতে পারলেন না তো! UTS অর্থাৎ আন রিজার্ভ টিকিট সিস্টেম এবং CRS অর্থাৎ কম্পিউটারাইজড টিকিট সিস্টেম। আপনারা প্রতিদিন লোকাল ট্রেনে যাতায়াতের জন্যে যার থেকে টিকিট বুক করেন, বা এক্সপ্রেস ট্রেনের জন্যে যার থেকে রিজার্ভ টিকিট বুক করেন, তিনিই হলেন কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্ক। এছাড়া এই পোস্টের আরও একটি কাজ হল লাগেজ, পার্সেল ইত্যাদি বুক করা এবং তার রের্কড নোট করে রাখা।

আরও পড়ুন ক্লিক করুন - লকডাউনের মধ্যে চাকরীর আবেদন করুন - ১৫০০+ ভ্যাকেন্সি

কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্কের মূল বেতন ২১,৭০০/- টাকা। এবং এই পোস্টের গ্রেড পে আছে ২০০০/- টাকা। এছাড়া, রেলওয়ের অনান্য সমস্ত ভাতা, যেমন DA, হাউজ রেন্ট, ইত্যাদি পাবেন। তবে হাউজ রেন্ট নির্ভর করবে, আপনার পোস্টিং কোথায় হয়েছে, তার উপর।  কারন, মেট্রো সিটিতে পোস্টিং হলে হাউজ রেন্ট বেশী পাবেন।  এবং ডিস্ট্রিক সিটি বা, গ্রাম্য কোনো রেলস্টেশনে আপনার পোস্টিং হলে হাউজ রেন্ট কম পাবেন। মনে রাখবেন, রেল কোয়ার্টার নিলে হাউজ রেন্ট পাবেন না। সব মিলিয়ে শুরুতেই আপনার বেতন হবে ২৮০০০ থেকে ৩২ ০০০ এর মধ্যে। এছাড়া পরিবারের মেডিকেল বেনিফিট পাবেন রেলওয়ে হসপিটল থেকে।

কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্কের প্রমোশন নিন্মলিখিত ধাপে ধাপে দেওয়া হল -

  • সিনিয়র কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক। ( গ্রেড পে ২৮০০/- টাকা)
  • চিফ কমার্সিয়াল টিকিট ক্লার্ক ( গ্রেড পে ৪২০০/-) 
  • Dy. স্টেশন ম্যানেজার ( গ্রেড পে  ৪৬০০/- টাকা)। 
অনান্য কিছু পোস্টের তুলনায় বেতন কম হলেও কমার্সিয়াল কাম টিকিট ক্লার্ক খুবই ভালো একটি পোস্ট যারা রিলাক্স লাইফ পছন্দ করেন। বিশেষ করে এই পোস্ট মেয়েদের জন্যে উপযোগী। কারন, এর ডিউটি টাইম নির্দিষ্ট।  ৮ ঘন্টা কাজ করতে হবে আপনাকে এবং টিকিট কাউন্টারের মধ্যে বসে কাজ করতে হবে। সপ্তাহে একদিন ছুটি পাবেন। এছাড়া আপনি বছরে ১০ টি ক্যাজুয়াল লিভ, অসুস্থতার ছুটি ( সিক লিভ) সব কিছু নিয়ামানুযায়ী পেয়ে থাকবেন।

এই পদের যোগ্যতা হল, আপনাকে স্বীকৃত উচ্চমাধ্যমিক পাশ হতে হবে এবং বয়সসীমা ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। মনে রাখবেন এই পোস্ট নিয়োগে স্টেজ I ও স্টেজ II পরীক্ষা দিতে হবে। কোনো টাইপিং টেস্ট দিতে হবে না। লিখিত পরীক্ষায় পাশ করলে, সরাসরি মেরিট লিস্ট, ডকুমেন্টস ভেরিফিকেশন ও মেডিকেল টেস্ট হবে। পোস্টটি তথ্যপূর্ন মনে হলে, নীচের হোয়াটঅ্যাপ বাটনে বন্ধুদের শেয়ার করে দিন।

আরও পড়ুন ক্লিক করুন লকডাউনের মধ্যে এই চাকরীর আবেদন করুন
আরও পড়ুন  রেল গ্রুপ ডি মেডিকেল পরীক্ষায় ছেলে ও মেয়েদের কী কী টেস্ট হয়?

Comments

  1. Our 3D printing capabilities make it simpler to produce Duvet Cover complex end-use components or maintain your product in your arms for the very first time, all without having to wait for quotes. Isabel Sanz, business growth supervisor for the AMS area for HP Inc., says the Jet Fusion 5200 and 5210 models from HP are perfect for 3D printing connector holders. Both machines use Multi-Jet Fusion technology for high-volume production. Further, the progressive firm wants to push the frontiers of the jewelry business further, bringing it into the digital era.

    ReplyDelete

Post a Comment

Popular posts from this blog

SSC MTS জব প্রোফাইল, স্যালারি, প্রোমোশন, ডিউটি, পোস্টিং ডিটেইলস

SSC MTS জব প্রোফাইল, স্যালারি, প্রোমোশন, ডিউটি, পোস্টিং ডিটেইলস টু'ডে বেঙ্গলি নিউজ : SSC MTS ( মাল্টি টাস্কিং স্টাফ) নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি বেরিয়েছে আজই। মাধ্যমিক যোগ্যতায় কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন অফিসে এই নিয়োগের মাধ্যমে কর্মী নিয়োগ করা হয়। তো অনেকেই জানতে চান, SSC MTS এর কাজ কী? স্যালারি কত? প্রোমোশন আছে কি নেই! কত সময় ডিউটি করতে হয়? ইত্যাদি ইত্যাদি নানা ধরনের প্রশ্ন। আজ সবকিছু নিন্ম লিখিত পোস্টে আলোচনা করা হল - প্রথমেই বলে রাখি, SSC MTS গ্রুপ ডি লেবেলের চাকরী কিন্তু তার মানে এই নয়, আপনাকে রেলের গ্রুপ ডি দের মত কাজ করতে হবে। এর চাকরীর পোস্টিং যেকোনো স্টেটে  অর্থাৎ আপনি ফর্ম ফিলাপের সময় যে রাজ্যে সিলেক্ট করবেন, সেই রাজ্যেই চাকরী হবে। ট্রান্সফার হলে, ঐ রাজ্যের মধ্যেই কোনো অফিসে ট্রান্সফার করা হয়, অন্য রাজ্যে ট্রান্সফার করে পাঠানো হয় না। SSC MTS চাকরীর নির্দিষ্ট কোনো কাজ নেই। যে ডিপার্টমেন্টে আপনার চাকরী হবে সেখানে আপনার পদ অনুযায়ী যে কাজ থাকবে, সেই কাজই আপনাকে দেওয়া হবে। মূলত যারা কম্পিউটার জানে, তাদের কম্পিউটার রিলেটেড কাজ দেওয়া হয়, আর অন্যদের ফাইল ওয়ার্ক, পেপার ওয়ার্ক, টে

রেল গ্রুপ ডি মেডিকেল পরীক্ষায় ছেলে ও মেয়েদের কী কী টেস্ট হয়?

রেল গ্রুপ ডি মেডিকেল পরীক্ষায় ছেলে ও মেয়েদের কী কী টেস্ট হয়? Today Bengali News : রেলের গ্রুপ ডি নিয়োগের সবথেকে শেষ ধাপ হল মেডিকেল পরীক্ষা।প্রথমেই বলি, রেলের গ্রুপ ডি তে PET অথার্ৎ 'মাঠ' ক্লিয়ার করা মানেই ৯৯% চাকরী পেয়ে যাওয়া যদি আপনার ডকুমেন্টস সব সঠিক থাকে।  গ্রুপ ডি মেডিকেল থেকে বাদ পড়ে খুব কম ঘটনাই আছে। তবে কিছু জিনিষ আপনি খেয়াল না রাখলে, বাদ পড়তে পারেন। অনেকেই প্রশ্ন করেন, আমার চসমা আছে, আমি কি বাদ পড়ব? এই সব কিছু নিয়ে নীচের  পোস্টে রেলের গ্রুপ ডি মেডিকেল টেস্ট  নিয়ে ডিটেইলসে আলোচিত হল - ১। ডিসটান্স ভিসন টেস্ট :   এটি ছেলে ও মেয়েদের ক্ষেত্রে হয়। আপনাকে ৬ মিটার দূরে বসিয়ে, সামনে বোর্ডে বড়, ছোটো হরফে ইংরাজী লেটার থাকবে। সেগুলি আপনাকে পড়তে হবে। এখানে ৬/১২ লেবেলের লেটার গুলো পড়তে পারলেই কোয়ালিফাই করবেন। নীচের ছবিতে লক্ষ্য করুন - ২। নিয়ার ভিসন টেস্ট ( Near Vision Test)   -  এটিও ছেলেদের ও  মেয়েদের ক্ষেত্রে হবে। এখানে আপনার চোখের খুব কাছাকাছি বোর্ডে বড়,  ছোট হরফে ইংরাজী লেটার থাকবে, সেগুলি পড়তে হবে। নীচের ছবিতে লক্ষ্য করুন- ৩। কালার ব্লাইন্ডনেস টেস্

স্টেশন মাস্টার জব প্রোফাইল, প্রমোশন, স্যালারি, কাজ, অনান্য সুযোগ ডিটেইলস

স্টেশন মাস্টার জব প্রোফাইল, প্রমোশন, স্যালারি, কাজ, অনান্য সুযোগ ডিটেইলস Today Bengali News :  'স্টেশন মাস্টার' শব্দটি শুনলেই একটি সাদা পোষাকের মানুষ আর প্লাটফর্মের ছবি চোখের সামনে ভেসে ওঠে। ছাত্র- ছাত্রী রা অনেক দিন থেকেই অপেক্ষা করে আছে, কবে স্টেশন মাস্টার পদের ভ্যাকান্সি বের হবে! NTPC 2019 নিয়োগের মাধ্যমে স্টেশন মাস্টার পোস্টে অনেক শূন্যপদে নিয়োগ হবে। এবার জেনে নেই, এই স্টেশন মাস্টার পদের কাজ কি, স্যালারি, প্রমোশন, কাজের সময়, ছুটি কেমন পাওয়া যায়, সব কিছু ডিটেইলস। আগে পোস্ট টি ছিল ASM অর্থাৎ অ্যাসিস্টান্ট স্টেশন মাস্টার। এবছর, রেল বোর্ড সেটি পরিবর্তন করে SM. অর্থাৎ স্টেশন মাস্টার করে দিয়েছে। এক লাইনে যদি স্টেশন মাস্টারের দায়িত্ব  বলতে হয়,  তাহলে কোনো একটি নির্দিষ্ট স্টেশনের সমস্ত দায়িত্ব তার কাঁধে থাকে। প্লার্টফর্মের ট্রেন পাসিং, সিগন্যালিং  তার মূল দায়িত্ব হলেও, যাত্রীদের সুরক্ষা, কোনো ঝামেলা হলে স্টেশনে, অসুস্থতা বিষয়ক সমস্যা, আরও স্টেশনের অনান্য যাবতীয় বিষয়ের সমস্ত বিষয়ের জন্যে তাকে জবাবদিহি দিতে হয়।  অনেক ছোটো স্টেশন আছে, সেখানে স্টেশন মাস্টার কে মাঝে মাঝে, পা